ক্লাস এসাইনমেন্ট

গ্রামারে ভালো করার টিপস

বেশির ভাগ শিক্ষার্থীই মনে করে- গ্রামার খুব জটিল! আসলে ততটা জটিল না। কিছু নিয়ম বা ধাপ অনুসরণ করলে গ্রামার আয়ত্ত করা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে।

১। গ্রামার মুখস্থ করার ব্যাপার নয়। পড়তে হবে বুঝে বুঝে। যে কোন টপিক পড়ে নিজে বোঝার চেষ্টা করো ব্যাপারটা আসলে কী! প্রয়োজনে টিচারের সাহায্য নাও।

২। বুঝি তো আমরা অনেক কিছু। কাজের বেলায় কি সব মনে থাকে! মনেই যদি না থাকলো তবে বুঝে কী হবে! এই সমস্যার সমাধান হলো অনুশীলন। বেশি বেশি অনুশীলন করতে হবে। গ্রামারের কোন টপিক বুঝে পড়ার পর নিজে নিজে এক্সারসাইজ অনুশীলন করবে। যেটা পারো না সেটা আবার বোঝার চেষ্টা করবে। এভাবে পড়লে সহজে ভুলবে না।

৩। কথায় আছে ঠেকে শেখাই আসল। আসলেই তাই! ঠেকে শেখা জিনিস মনে থাকে। নিজে নিজে গ্রামার ঠিক রেখে ইংরেজি লেখার চেষ্টা করবে। হয়তো পুরোপুরি গ্রামার ঠিক থাকবে না। নিজে বা কারো সাহায্য নিয়ে ভুলগুলো বের করবে। এভাবে ভুল বের করতে করতে দেখবে এক সময় ভুল আর তেমন হচ্ছে না!

৪। গ্রুপ স্টাডি কিন্তু আসলেই মজার ব্যাপার। কয়েকজন মিলে গল্পের মত আলোচনা করে করে পড়া। মজায় মজায় অনেক কিছু শেখা হয়ে যায়। এই জিনিসটা গ্রামার আয়ত্ত করতে অনেক হেল্পফুল হতে পারে। সুতরাং চেষ্টা করেই দেখো, গ্রামার আর জটিল নাও লাগতে পারে!

– ফখরুল ইসলাম

Rate this post

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button