চাকরির খবর

প্রাথমিক নিয়োগে উত্তীর্ণদের কাগজপত্র জমা ১৮ জুনের মধ্যে

প্রাথমিক নিয়োগে উত্তীর্ণদের কাগজপত্র জমা দিতে হবে ১৮ জুন ২০২২ তারিখের মধ্যে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় ২য় ধাপে উত্তীর্ণদের কাগজপত্র ১৮ জুন ২০২২ তারিখের মধ্যে জমা না দিলে তাঁদের মৌখিক পরীক্ষার (ভাইভা) কার্ড ইস্যু করা হবে না।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের ২য় ধাপের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ৫৩,৫৯৫ জন। ৯ জুন ২০২২ (বৃহস্পতিবার) রাতে এই ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। উত্তীর্ণ প্রার্থীদের পরবর্তীতে প্রকাশিত সময়সূচি অনুযায়ী মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে।

ডিপিই’র বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনের আপলোডকৃত ছবি, আবেদনের কপি, লিখিত পরীক্ষার প্রবেশপত্র, নাগরিকত্ব সনদ, স্থায়ী ঠিকানার সপক্ষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বা ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সনদপত্র, জাতীয় পরিচয়পত্র, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদসহ পোষ্য সনদ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) ও অন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র কমপক্ষে ৯ম গ্রেডের গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক সত্যায়িত করে ১৮ জুন ২০২২ তারিখের মধ্যে অফিস সময়ে নিজ নিজ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দিয়ে প্রাপ্তিস্বীকারপত্র সংগ্রহ করতে হবে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে সব সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের ফটোকপি (সত্যায়িত) জমা দেয়ার সময় সেসব কাগজের মূল কপি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে প্রদর্শন করতে হবে।

মৌখিক পরীক্ষার সময় সব একাডেমিক সনদ, প্রাপ্তিস্বীকারপত্র ও অন্য কাগজপত্রের মূল কপি প্রার্থীকে সঙ্গে আনতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার তারিখ যথাসময়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে (http://www.dpe.gov.bd) প্রকাশ করা হবে।

এদিকে, প্রাথমিকের প্রথম ধাপের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ১২ জুন থেকে। এ পরীক্ষার সময়সূচি সংশ্লিষ্ট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের নোটিশ বোর্ড এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর, জেলা প্রশাসক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

Rate this post

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button