ভর্তি তথ্য

মেরিন একাডেমি ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২৩

মেরিন একাডেমি ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২-২০২৩ প্রকাশিত হয়েছে। ২০২২-২০২৩ শিক্ষাবর্ষে মেরিন ক্যাডেট প্রশিক্ষণ কোর্সে মেরিন একাডেমিতে ভর্তি সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে নৌ-পরিবহন অধিদপ্তর (dos.gov.bd)। বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি (চট্টগ্রাম) সহ সরকারি-বেসরকারকারি মেরিটাইম শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (মোট ৯টি) ভর্তির মাধ্যমে নটিক্যাল / ইঞ্জিনিয়ারিং ক্যাডেট হিসেবে যোগ দেয়া যাবে।

কোর্সের নাম : মেরিন ক্যাডেট প্রশিক্ষণ কোর্স ( নটিক্যাল / ইঞ্জিনিয়ারিং ক্যাডেট)
মোট আসন সংখ্যা :৫৯০টি
কোর্সের নাম : মেরিন ক্যাডেট প্রশিক্ষণ কোর্স ( নটিক্যাল / ইঞ্জিনিয়ারিং ক্যাডেট)
আবেদনের শেষ তারিখ :৩১ জুলাই ২০২২
আবেদনের লিংক :https://doscadet.solutionart.net অথবা http://dos.gov.bd

মেরিন একাডেমির নাম, তালিকা ও আসন সংখ্যা

প্রতিষ্ঠানের নামসিট / আসন সংখ্যা
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি, চট্টগ্রামপুরুষ ১৪০ জন ও মহিলা ২০ জন
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি, পাবনাপুরুষ ৫০ জন
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি, বরিশালপুরুষ ৫০ জন
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি, রংপুরপুরুষ ৫০ জন
বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি, সিলেটপুরুষ ৫০ জন
মেরিন ফিশারিজ একাডেমি, চট্টগ্রামপুরুষ ৬৫ জন ও মহিলা ৫ জন
ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম একাডেমি, ঢাকাপুরুষ ৮০ জন
ওয়েষ্টার্ণ মেরিটাইম একাডেমি, ঢাকাপুরুষ ৪০ জন
মাস মেরিন একাডেমি, চট্টগ্রামপুরুষ ৪০ জন

আবেদনের যোগ্যতা

  • বয়স : ৩০ জুন ২০২২ তারিখে সর্বোচ্চ ২২ বৎসর (পুরুষ/মহিলা)।
  • শিক্ষাগত যোগ্যতা : মাধ্যমিক/সমমান (বিজ্ঞান) এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান (বিজ্ঞান) উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম যোগ্যতা জিপিএ ৩.৫০। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পদার্থ ও গণিত বিষয়ে পৃথক ভাবে জিপিএ ৩.৫০ এবং ইংরেজীতে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ অথবা IELTS গড় স্কোর ৫.৫ থাকতে হবে।
  • ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থী : O লেভেলে ৫টি বিষয়ের মধ্যে ন্যূনতম ৩টিতে A গ্রেড এবং ২টিতে B গ্রেড থাকতে হবে এবং A লেভেলের জন্য নূনতম ২ টি বিষয়ে B গ্রেড পেয়ে উত্তীর্ণ (উভয় পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞান এবং গণিতসহ) হতে হবে।
  • শারীরিক মান (নূন্যতম) : উচ্চতা ৫’-৪”; মহিলা ৫’-২”। ওজন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার BMI চার্ট মোতাবেক হতে হবে (BMI নূন্যতম মান ১৭ এবং সর্বোচ্চ ২৭; যেমন ৫’-৪”; ৪৫-৭১ কেজি; ৫’-৬”; ৪৮-৭৬ কেজি)। দৃষ্টিশক্তি: নটিক্যাল ক্যাডেটের জন্য ৬/৬; ইঞ্জিনিয়ারিং ক্যাডেটের জন্য ৬/১২ (চশমাসহ অবশ্যই ৬/৬ হতে হবে)।
  • বৈবাহিক অবস্থা : অবিবাহিত হতে হবে।
  • নাগরিকত্ব : বাংলাদেশী পুরুষ ও মহিলা নাগরিক।

ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি ও মানবণ্টন

  • ভর্তি পরীক্ষায় মোট নম্বর ৩০০। এর মধ্যে এমসিকিউ পরীক্ষায় ১০০, এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ১৫ গুন = ৭৫ নম্বর (সর্বোচ্চ) এবং এইচএসসি/সমমানের পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ২৫ গুন = ১২৫ নম্বর (সর্বোচ্চ)।
  • এমসিকিউ পরীক্ষা : সর্বমোট ২০০টি MCQ প্রশ্ন থাকবে পদার্থ বিজ্ঞান (২৫ নম্বর), গণিত (২৫ নম্বর), বাংলা (১০ নম্বর), ইংরেজি (২৫ নম্বর) ও সাধারণ জ্ঞান (১৫ নম্বর) বিষয়ের উপর। সময় ২ ঘণ্টা ও এমসিকিউতে মোট নম্বর ১০০। এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা প্রাথমিক শারীরিক যোগ্যতা পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।
  • মৌখিক পরীক্ষা : প্রাথমিক শারিরীক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা মৌখিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।
    ভর্তি পরীক্ষায় পাশ নম্বর ৫০%

অনলাইনে আবেদনের ধাপ ও নিয়ম

মেরিন একাডেমি, মেরিটাইম একাডেমি ও মেরিন ফিশারিজ একাডেমিতে অনলাইনে ভর্তি আবেদনের ধাপ ও নিয়ম (নির্দেশনা) দেওয়া হয়েছে ৯ পৃষ্ঠার এই PDF ফরমেটের গাইডলাইনে : https://doscadet.solutionart.net/media/application-guideline.pdf

ভর্তি পরীক্ষা

লিখিত ভর্তি পরীক্ষার তারিখ আবেদন জমা দেয়া প্রার্থীদের মোবাইল নাম্বারে এসএমএস পাঠিয়ে জানিয়ে দেবে কর্তৃপক্ষ।

মেরিন ক্যাডেট প্রশিক্ষণ সার্টিফিকেট

মনোনীত ক্যাডেটরা ২ বছর প্রশিক্ষণ শেষে প্রি-সি নটিক্যাল সায়েন্স অথবা প্রি-সি মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং সনদ পাবেন।

মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং ভর্তি ২০২২-২০২৩ – Marine academy admission circular 2022

marine academy circular 2022
Nautical marine engineering admission circular 2022

মেরিন ইঞ্জিনিয়ারদের চাকরির সুযোগ কোথায়-কেমন

  • মেরিন একাডেমি বা মেরিটাইম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে স্নাতক পর্যায়ে দুটি বিভাগ আছে। একটি মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং অন্যটি নটিক্যাল সায়েন্স।

  • মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং/নটিক্যাল সায়েন্স কোর্সে দুই বছর পড়াশোনা করে জাহাজের ইঞ্জিন/ডেক বিভাগের ইঞ্জিনিয়ার/অফিসার হওয়া যাবে। এ ক্ষেত্রে প্রথমে শিক্ষানবিশ ইঞ্জিন ক্যাডেট/ডেক ক্যাডেট হিসেবে যোগ দিয়ে এক বছর ‘সি টাইম’ অতিবাহিত করতে হবে। এরপর দেশে কিংবা বিদেশে (সিঙ্গাপুর, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া ইত্যাদি) ‘সিওসি (সার্টিফিকেট অব কম্পটেন্সি) ক্লাস থ্রি’ পরীক্ষা দিয়ে পাস করে জাহাজে ফোর্থ ইঞ্জিনিয়ার (মেরিন)/থার্ড অফিসার (নটিক্যাল) হিসেবে চাকরি করা যাবে। এ ছাড়া মেরিন একাডেমিতে পড়াশোনা করলে এক বছর জাহাজের প্রশিক্ষণ শেষে আবার মেরিটাইম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এক বছর মেয়াদি বা সপ্তম ও অষ্টম সেমিস্টার সম্পন্ন করে বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং সনদ অর্জন করা যাবে। জাহাজে ইঞ্জিন ও ডেক বিভাগের সবচেয়ে বড় পদ যথাক্রমে চিফ ইঞ্জিনিয়ার ও ক্যাপ্টেন (মাস্টার)।

  • মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং কিংবা নটিক্যাল সায়েন্সে পড়াশোনা করে জাহাজে চাকরি ছাড়াও দেশে পাওয়ার প্ল্যান্ট ও শিল্প-কলকারখানায় উচ্চ পদে চাকরি পাওয়া যায়। তবে এ ক্ষেত্রে অন্তত মাস কয়েক জাহাজে কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে অগ্রাধিকার পাওয়া যাবে। এ ছাড়া বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং সনদধারীরা অন্য যেকোনো সরকারি-বেসরকারি চাকরির জন্যও আবেদন করতে পারবেন। টেকনিক্যাল ও ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরিতে সার্টিফিকেটের পাশাপাশি কাজের অভিজ্ঞতা গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা হয়।

মেরিন ইঞ্জিনিয়ারদের বেতন কেমন

চাকরির শুরুতে একজন ইঞ্জিন ক্যাডেট বা ডেক ক্যাডেট দেশি জাহাজে ৩০০ মার্কিন ডলার এবং বিদেশি জাহাজে ২৫০ থেকে ৩০০ মার্কিন ডলার বেতন পান। চাকরির শুরুতে নবীন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারদের বেশ কিছু অসুবিধার মুখোমুখি হতে হয়। কোর্স শেষ করে প্রথম দিকে (অভিজ্ঞতা না থাকায়) চাকরি পেতে কিছুটা সমস্যা হয়। জাহাজ মালিক কিংবা মেরিন এজেন্সির মালিকদের অধীনে কম বেতনে চাকরি করতে হয়। বিদেশি জাহাজে চাকরি হয়েছে কিন্তু ভিসা হয়নি, এমনও অনেক উদাহরণ আছে।

বিগত পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের নমুনা

1.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 55 Batch Cadets, 2018 – click here
2.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 54 Batch Cadets, 2017 – click here
3.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 53 Batch Cadets, 2016 – click here
4.SAMPLE QUESTION: Question Paper (English version)- 52 Batch Cadets, 2015 – click here
5.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 52 Batch Cadets, 2015 – click here 
6.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 51 Batch Cadets, 2014 – click here
7.SAMPLE QUESTION: Question Paper- 50 Batch Cadets, 2013 – click here

প্রার্থীদের ভর্তি সংক্রান্ত জিজ্ঞাসা ও উত্তর

👉🏼 কোন গ্রুপের স্টুডেন্ট আবেদন করতে পারবে?
উঃ শুধুমাত্র বিজ্ঞান বিভাগ। মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগের স্টুডেন্টদের সুযোগ নেই
👉🏼 ভর্তি পরীক্ষা কবে হবে?
উঃ আবেদন শেষ হওয়ার ১০-২০ দিনের মধ্যে ই সম্ভাবনা বেশি। ৫-৬ দিন আগে ই মোবাইলে মেসেজ আসবে।
👉🏼 পরীক্ষা কোথায় হবে?
উঃ গতবছর শুধু ঢাকায় হয়েছিলো। সরকারি বিজ্ঞান কলেজে।
👉🏼 আমার বয়স বেশি/পয়েন্ট কম। আমি কি আবেদন করতে পারব?
উঃ আবেদন করতে পারলেও ভর্তি হওয়ার বিন্দুমাত্র সুযোগ নেই।
👉🏼 ছাত্রীরা কি আবেদন করতে পারবে?
উঃ হ্যাঁ পারবে। সরকারি তে ছাত্রীদের জন্য ২৫ টি সিট রয়েছে।
👉🏼 কিভাবে আবেদন করবো?
উঃ অনলাইনে একটু দক্ষ হলে নিজে ই করা যায়। তবে ১০০ টাক দিয়ে দোকান থেকে ই করা উত্তম।
👉🏼 মোট কতটা এমসিকিউ?
উঃ ২ টা এমসিকিউ তে ১ মার্ক। অর্থাৎ ১০০ মার্কের জন্য ২০০ এমসিকিউ 😃
👉🏼 নেগেটিভ মার্কিং আছে?
উঃ না নাই। তাই ২০০ এর মধ্যে ২০০ টা ই দাগিয়ে আসবা 🤣
👉🏼 সেকেন্ড টাইম আছে?
উঃ বয়স থাকলে শুধু সেকেন্ড টাইম না থার্ড টাইম ও দিতে পারবা🥱
আমার পাশের সিটের ছেলেটা থার্ড টাইম
দিয়ে এখন মেরিন একাডেমি, চট্টগ্রামে পড়তেছে 😘
👉🏼 সিলেকশন কি আবেদনের সময় ই দিতে হবে?
উঃ হ্যাঁ, আবেদনের সময় ই দিতে হবে? #FAYEZUR_RUB
👉🏼 প্রাইভেট ই এ কি সিলেকশন দিবো?
উঃ পড়ার ইচ্ছা না থাকলে সিলেকশন এ রাখার ই প্রয়োজন নাই। কেননা যদি সিলেকশন এ রাখো তবে সেখানে চান্স আসবে। আর তখন ভর্তি কনফার্ম না করলে মাইগ্রেশনের সুযোগ পাবে না। এই মারা টা খেয়ে আমি ও আজ মেরিনার না। আমার পিছনের আরও ৪০ জন পর্যন্ত সরকারি মেরিনে চান্স পাইসে।
by the way ভর্তি কনফার্ম করতে ৫০ হাজার টাকা লাগে 🤣🤣🤣
👉🏼 যদি পরবর্তীতে প্রাইভেট এ পড়ার ইচ্ছা জাগে তার জন্য কি সিলেকশন এ রাখবো?
উঃ আমার মতো মারা না খাইতে চাইলে রাখিও না। কেননা ১ম ওয়েটিং এর পর লিস্টে নাম থাকা যেকোনো কেউ সিট ফাকা সাপেক্ষে যেকোনো প্রাইভেট এ ভর্তি হতে পারবে 🔥
👉🏼 আমার তো জিপিএ কম আমার কি আবেদন করে লাভ হবে?
উঃ আবেদনের যোগ্যতা থাকলে আর ইচ্ছা থাকলে কোনো ভাবনা ব্যাতীত ই আবেদন করে ফেলো। বিশ্বাস করবা না বেশি পয়েন্ট ওয়ালা স্টুডেন্ট কম ই দেখছি 😌
👉🏼এমসিকিউ এর জন্য কিভাবে প্রিপারেশন নিবো বা কোন কোচিং এ ভর্তি হবো? Admission Infobot
উঃ ভর্তি পরীক্ষার দিন লিফলেট দেখে জানতে পারছি এটার আলাদা কোচিং ও আছে 😁 ভার্সিটির জন্য যেভাবে পড়তেচো ওভাবে পড়লে ই হবে। বিশেষ করে ঢাবি প্রশ্নব্যাংক না সলভ করে হলে না ঢুকার রিকুয়েষ্ট থাকবে আমার পক্ষ থেকে 😊
আর প্রশ্নব্যাংক এর জন্য Admission Assistant এর ৫০ দিনে এমসিকিউ বস কোর্স টি দেখতে পারো। কেননা এখানে মেরিন সহ বিগত ৫ বছরের ৩০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্নব্যাংক এনালাইসিস করে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলো নিয়ে কোর্স টি সাজানো হয়েছে।
👉🏼 এমসিকিউ পরীক্ষার রেজাল্ট কবে দিবে আর কিভাবে রেজাল্ট হবে?
উঃ পরীক্ষার দিন বা পরের দিন ই দিবে। শুধু এমসিকিউ তে প্রাপ্ত মার্ক অনুসারে সিরিয়াল দেওয়া হবে🔥
👉🏼 সবাই কি শারীরিক পরীক্ষা দিতে পারবে?
উঃ হ্যাঁ যারা ৪০ পেয়ে পাশ করবে সবাই ই শারীরিক পরীক্ষা দিতে পারবে👨‍🎓
👉🏼শারীরিক পরীক্ষা কয়দিন পরে হবে? Admission Assistant
উঃ এমসিকিউ এর রেজাল্ট দেওয়ার পর কয়েক দিন পর থেকে প্রতিদিন গ্রুপ গ্রুপ করে শারীরিক পরীক্ষা হবে এবং উত্তীর্ণ হলে পরের দিন ভাইবা হবে 💁‍♂️
👉🏼 শারীরিক পরীক্ষা তে কি কি পরীক্ষা হবে?
উঃ ওজন ও উচ্চতা মাপা, দৌড়, পুশ আপ, দড়ি বেয়ে উঠা, সাঁতার💪
👉🏼 শারীরিক এ কি বাদ দেয়?
উঃ হ্যাঁ। তবে সাঁতার এ বেশি বাদ যায়। যারা অল্প সাতার পারে অর্থাৎ ২০০ মিটার সাতার দিতে পারবে তারা উত্তীর্ণ হবে। আর শারীরিক পরীক্ষাতে আর্মির মতো কড়াকড়ি নেই। কয়েকদিন প্র‍্যাক্টিস করতে হবে অবশ্যই ⏱️
👉🏼 শারীরিক এ বাদ পড়লে কি বাদ?
উঃ না, আবার পরীক্ষা দিতে পারবে আবেদন করে ✅
👉🏼 ভাইবা তে কিভাবে প্রশ্ন করে?
উঃ ইংরেজিতে মোটামুটি ১০-১২ টা একেবারে সাধারণ প্রশ্ন ও পদার্থ/গণিত/জিকে থেকে প্রশ্ন। ঘাবড়ানোর কোনো কারন নেই 🙂
👉🏼এরপর আর কয়টা পরীক্ষা?
উঃ আরো আছে 😁😁 চূড়ান্ত মেডিকেল ও চক্ষু পরীক্ষা হবে সেখানে।
👉🏼 নটিক্যাল কি ইঞ্জিনিয়ারিং কি?
উঃ নটিক্যাল হচ্ছে ডেক সংশ্লিষ্ট কাজ আর ক্যাপ্টেন পদ পর্যন্ত হওয়া যায়। আর ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে কি বলার 😁 সর্বোচ্চ পদবী হবে চীফ ইঞ্জিনিয়ার

4.7/5 - (7 votes)

প্রাসঙ্গিক

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page