তথ্য প্রযুক্তি

কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি বিশ্লেষণ – Keyword Difficulty Explanation

অনেক রিডার বা ট্রাফিক পেতে কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি বিশ্লেষণ (Keyword Difficulty Explanation)-এর বিকল্প নেই।

অনেক রিডার বা ট্রাফিক পেতে কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি বিশ্লেষণ (Keyword Difficulty Explanation)-এর বিকল্প নেই। এসইও বা ওয়েবসাইট rank এর ক্ষেত্রেও কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি বিশ্লেষণ করতে হয়।

কিওয়ার্ড ডিফিকাল্টি বিশ্লেষণ : গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টস

  • প্রাইমারি Research শেষ করার পরে, আপনাকে Competitor Keyword Analysis এর দিকে নজর দিতে হবে।
  • এই ধাপে আপনাকে দেখতে হবে Keyword Ranking করতে হলে কি পরিমাণ Competitors কে ফেস করতে হবে। অর্থাৎ একটা Keyword কে Google এর প্রথম পৃষ্ঠায় আনতে হলে সেটার Difficulty কেমন হবে সেটা এনালাইসিস করাকে Keyword Analysis বলা হয়।
  • একটা Website কে দ্রুত সময়ের মধ্যে Rank করতে হলে আপনাকে Low Competitive Keyword অবশ্যই সিলেক্ট করতে হবে।
  • এটি করতে আপনার Chrome ব্রাউজারে MozBar ইনস্টল করুন। (MOZ-এর ক্ষেত্র আপনাকে ভিপিএন ব্যবহার করা লাগতে পারে) অথবা আপনি SEO Quake Chorme Extension Use করতে পারেন।
  • Extension গুলা একটিভ করার পরে যখন আপনি টার্গেটকৃত কিওয়ার্ড নিয়ে গুগলে সার্চ করবেন তখন SERP তে থাকা সকল ওয়েবসাইটের ডাটা আপনার কাছে শো করবে।
  • Moz বা SEOquake তে প্রাপ্ত ডাটা গুলোর মধ্যে আপনি দেখবেন Domain Rating কেমন? কয়টা Backlinks আছে? গুগলো কয়টা পেজ ইনডেক্স করা আছে? রেফারিং ডোমেইন কেমন? ( কন্টেন্ট Length কেমন সেটাও দেখা জরুরি)
  • এবার র‍্যাঙ্কিং এ থাকা সাইট গুলির ডোমেন অথোরিটি দেখুন ও এর গড় মান বের করুন। যদি সেটা ৩০ এর কম হয় তবে সেটা তুলনামূলক কম ডিফিকাল্টির কিওয়ার্ড।
  • রেফারিং ডোমেন বা তারা কতোগুলো সাইট থেকে ব্যাকলিংক পেয়েছে সেটা চেক আউট করুন। একটি পেজ যত বেশি “ভোট” পায় (ব্যাকলিংক আকারে), এটির র‍্যাঙ্ক তত বেশি হয়। আর এর মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন যে র‍্যাঙ্কিং করতে কি পরিমাণ ব্যাকলিংক তৈরি করতে হবে।

5/5 - (5 votes)

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button